December 4, 2022, 4:33 am

স্বাগতম:
আমার ব্লগে আপনাকে স্বাগতম। সামাজিক আচরণ করুন, সকল-কে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখুন।

ইন্ডিয়া ভ্রমণ/ ইন্ডিয়া যাওয়ার নিয়ম

জেনে রাখুন ইন্ডিয়া ভ্রমন/মেডিকেল সংক্রান্ত বিষয় কিছু ধারণা।
প্রথম কথা সাব-সাব, আপনি যেই হোন না কেন আপনার একখান লাল,কাল বা সবুজ পাসপোর্ট থাকতেই হবে।
যদি আপনি সাধারণ পাবলিক হোন তাহলে আপনার ভ্রমন/মেডিকেল ভিসা করতে হবে।
যদি সরকারি চাকুরি জীবি হোন তাহলে আপনার অফিস কর্তৃক মঞ্জুরীকৃত পুর্ণগড়বেতনে অর্জিত ছুটি/অর্ধগড়বেতনে অর্জিত ছুটি/ প্রাপ্য ছুটি/বিনাবেতনে ছুটি মঞ্জুর হতে হবে। অবকাশকালিন ছুটি ও শ্রান্তিবিনোদন ছুটির ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট দপ্তরকর্তৃক প্রধান/কন্ট্রোলার বা ডিডিও এই ছুটি মঞ্জুর করার ক্ষমতা রাখেন। অফিসিয়াল পাসপোর্ট মঞ্জুর সংক্রান্ত বিষয়ে বিভিন্ন অফিসে জটিলতা থাকলেও বিষয়টির জন্য প্রত্যেক মন্তনালয় দপ্তরে ও কন্ট্রোলিং ডিপার্টমেন্টে পাসপোর্ট ফোকাল পয়েন্ট বসানো জিও করেছেন। এক্ষেত্রে কোন অযৌক্তিকত গ্রহণ যোগ্য নয়।
যদি আপনি সরকারি কাজে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন তাহলে পাসপোর্টটি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের আদেশ অনুযায়ী করবেন। সেক্ষেত্রে কুটনীতিক পাসপোর্ট পাওয়া সহজ হয়। যা মহামূল্যবান।
ভারত যাওয়ার আগে-
ভিসা/অফিস অর্ডার নিশ্চিত হওয়ার পর সেটার ফটোকপি দিয়ে ডলার এন্ড্রোস করান(৩০০টাকা খরচ) এবং সর্বনিম্ন ১৫০ডলার বৈধতার জন্য সাথে রাখবেন।
এরপর সোনালী ব্যাংক থেকে একটি ভ্রমন ট্যাক্স ৫০০টাকা দিয়ে নেবেন যা কাস্টমসে লাগবে।
যাত্রার দিন-
প্রথমে ইমিগ্রেশন পয়েন্টের অফিস সহকারী(পুলিশ কর্মকর্তা)র নিকট গিয়ে ইমিগ্রেশন ফর্মপুরণ করুন এবং পরের ঘরে ছবি তুলে পাসপোর্টটি হাতে নিন এবং শেষে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার রুমে গিয়ে পাসপোর্টটিতে স্বাক্ষর করে নিন।
দ্বিতীয়ত: কাস্টমসে গিয়ে আপনার পাসপোর্টটি জমা দিন, সেখানে এন্ট্রি হওয়ার পর আপনাকে ডলার প্রদর্শণ করার বিষয়ে জিজ্ঞাসা করতে পারে, সাথে সাথে আপনার এন্ড্রোস করা পরিমান ডলার প্রদর্শণ করুন। সাথে যদি ডিজিটাল ক্যামেরা/ল্যাপটপ/অন্যান্য ইলোকট্রনিক যন্ত্র থাকে মোবাইল দুটির বেশি হলে, সেগুলো ব্যাপারে কাস্টমস কর্মকর্তাকে জানান। তিনি আপনার পাসপোর্টে তা লিখে দেবেন আপনার সাথে কি কি যাচ্ছে এবং কি কি ফ্রি ফ্রি ফিরে আসবে।
এবার পর্ব-৩: চেকপোষ্টের মাঝখানে বিজিবির ক্যাম্প রয়েছে। সেখানে আপনার পাসপোর্টখানা রেজিষ্ট্রেশন করার, আপনার লাগেজ চেক করান, তারপর বাংলাদেশে কাজ শেষ। এরপর ইন্ডিয়া প্রবেশ করুন।
অনুরূপ ইন্ডিয়ায় প্রবেশ করার পর প্রথমে বিএসএফ রেজিষ্ট্রেশন, তারপর কাষ্টম এবং শেষে ইমিগ্রেশন পয়েন্টে গিয়ে ছবি তুলে বের হয়ে যান।
মনে রাখবেন, যাওয়ার সময় ৪টি ও আসার সময় ৪টি সীল পাসপোর্টের পেজে পড়ে। এর একটি কম হলে বা কোন স্টেপ বাদ দিয়ে গেলে আপনি অবৈধ ভাবে প্রবেশ করবেন। বিষয়টি ভাল লাগলে শেয়ার করে আপনার বন্ধুবান্ধবদের জানিয়ে দিন। পরের পর্বে দেখাবো কোন হাসপাতালে কি ভাবে ইন্ডিয়ায় চিকিৎসা সেবা নেবেন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved 2020 msbabu.com