December 4, 2022, 4:40 am

স্বাগতম:
আমার ব্লগে আপনাকে স্বাগতম। সামাজিক আচরণ করুন, সকল-কে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখুন।

বাংলাদেশে পাসপোর্ট করার নিয়ম

ইন্ডিয়া যাওয়া নিয়ে অনেকে নিয়ম সমুহ জানতে চেয়েছেন। এই পর্বে আমি ইন্ডিয়া যাওয়ার পূর্বে পাসপোর্ট করার নিয়ম সমুহ বলবো।

পাসপোর্ট করার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজ সংগ্রহ করতে হবে। আপনি যদি সাধারণ নাগরিক হয়ে থাকেন তাহলে আপনার ভোটার আইডি কার্ড, জাতীয়তার সনদ ও নাগরিকত্ব সনদ সংগ্রহে রাখবেন। যদি সরকারী চাকুরীজীবী হয়ে থাকলে উপরোক্ত কাগজের সাথে অবশ্যই এনওসি/জিও সংগ্রহে রেখে পাসপোর্ট ফর্ম জমা দিতে যাবেন।

স্টুডেন্ট হলে আইডিকার্ড/প্রসংশাপত্র এবং বেসরকারি কোন প্রতিষ্ঠানে চাকুরি করলে থাকলে অবশ্যই সেই প্রতিষ্ঠান হতে অনাপত্তিপত্র সাথে করে নিয়ে যাবেন।

এবার প্রথমেই https://www.epassport.gov.bd/ ওয়েব সাইটে গিয়ে আপনার ইমেইল দিয়ে একটি একাউন্ট করে নেবেন। তারপর ফর্মপুরণ শুরু করবেন। ফর্মপুরণের ৫টি ধাপ রয়েছে। তারপর পুরণ করে টাকা জমার একটা পেজ আসবে তা প্রিন্ট করবেন, তারপর আপনার পুরণ কৃত ফর্মটি পুরণ করবেন। দুই বা তিন পেজ হতে পারে। একটা জিনিস মনে রাখবেন ফর্মপুরণের সময় আপনার ভোটার আইডি/জন্মসনদে যা আছে তাই হুবাহু দেয়ার চেষ্টা করবেন। নইলে আপনি নিজেই বাটে পড়বেন। ফর্মপুরণের সময় চালাকি করার চেষ্টা করবেন না, পূর্বের কোন পাসপোর্ট থাকলে সেটাও উল্লেখ করবেন অন্যথায় আপনার বিরুদ্ধে আইন আনানুগ ব্যবস্থাগ্রহণ করবেন। এবার ব্যাংকে টাকা জমা দিন। টাকা জমাটা দুধরণের। দ্রুত ডেলিভারীর জন্য একরকম(এক্সপ্রেস ডেলিভারী), নরমাল ডেলিভারী(সাধারণ) ফি সংক্রান্ত ছবি দেয়া হলো। এরপর পুরণকৃত ফর্ম ও আপনার জন্য উল্লিখিত কাগজপত্রাদি সংযুক্ত করে পাসপোর্ট অফিসে যাবেন। মনে রাখবেন আপনার অরিজিনাল ভোটার/জন্মসনদ ছাড়া ফর্ম জমা নেবে না। ফর্ম ভেরিফাই হওয়ার পর লাইনে দাড়িয়ে ছবি তুলবেন। ছবি তোলা ও ফিঙ্গারপ্রিন্ট নেয়ার পর আপনার হাতে একটি স্লিপ ধরিয়ে দেন। সেটিতে ডেলিভারী ডেট থাকবে। উক্ত তারিখে গিয়ে আপনার পাসপোর্ট নিয়ে আসবেন। কাজ শেষ। আমার এই টোটাল প্রসেসিংটাই নির্ভর করবে পুলিশ ভেরিফিকেশনের উপর। কারণ পুলিশ ভেরিফিকেশন পিছালে আপনার পাসপোর্ট ডেলিভারী স্লো হবে।

কোন কিছু জানার থাকলে মন্তব্য করতে পারেন। আমি রিপ্লাই দেবো।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved 2020 msbabu.com